সুইজারল্যান্ড শেঙ্গেন জোনের সদস্য হলেও 
সীমান্ত অঞ্চলে বিদেশি নাম্বারপ্লেট ব্যবহারকারী গাড়গুলোকে প্রায়ই ব্যাপক কড়াকড়ির মধ্য দিয়ে যেতে হয়। ছবি: পিকচার এলায়েন্স।
সুইজারল্যান্ড শেঙ্গেন জোনের সদস্য হলেও সীমান্ত অঞ্চলে বিদেশি নাম্বারপ্লেট ব্যবহারকারী গাড়গুলোকে প্রায়ই ব্যাপক কড়াকড়ির মধ্য দিয়ে যেতে হয়। ছবি: পিকচার এলায়েন্স।

সুইজারল্যান্ডের নিডওয়ালডেন ক্যান্টনে ইটালি থেকে আসা একটি ভ্যান থেকে এক বাংলাদেশিসহ ২৩ জন অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে। তারা ফ্রান্সে পৌঁছানোর চেষ্টা করছিলেন বলে জানা গেছে। অভিবাসীদের সাথে থাকা একজনকে পাচারকারী সন্দেহে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সুইজারল্যান্ডের নিডওয়ালড ক্যান্টন পুলিশের হারগিসউইল শাখা জানিয়েছে, সোমবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে স্থানীয় হাইওয়েতে ভারি পণ্যবাহী গাড়ি চলাচল নিয়ন্ত্রণের অংশ হিসাবে উত্তর দিক থেকে আসা ইটালির নাম্বার প্লেট ব্যবহারকারী একটি গাড়িকে থামানো হয়। 

পুলিশের বরাত দিয়ে ফরাসি গণমাধ্যম সি নিউজ জানায়, গাড়ির নথি যাচাইয়ের সময় চালকের কথাবার্তায় সন্দেহ হলে পণ্যবাহী গাড়িটির ভেতরে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় পুলিশ। এক পর্যায়ে দরজা খোলা হলে গাড়ির ভেতরে থাকা ২৩ জন অনিয়মিত অভিবাসীকে খুঁজে পায় আইন প্রয়োগকারী সংস্থা। 

পড়ুন>> দুই বছরের মধ্যে ১৬০০ শরণার্থী নেবে সুইজারল্যান্ড

অভিবাসীদের মধ্যে বেশ কয়েকজন আফগান, সিরীয় এবং ভারতীয় নাগরিকের পাশাপাশি একজন বাংলাদেশিও রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

২০ থেকে ৫০ বছর বয়সি এসব অভিবাসীরা ভ্যানের ভেতরে একত্রে দাঁড়িয়ে থেকে নড়াচড়া এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্ট করছিল বলে ধারণা করছে কর্তৃপক্ষ।

সুইস দৈনিক লো তঁ এর মতে, আটক হওয়া ২৩ অভিবাসী উত্তর ইটালি থেকে সুইজারল্যান্ড পার হয়ে ফ্রান্সে পৌঁছানোর কথা ছিল। প্রাথমিকভাবে তাদেরকে ঘটনাস্থল থেকে নিডওয়ালডেন পুলিশের তত্ত্বাবধানে নেওয়া হয়। পরবর্তী আইনি সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত অভিবাসীদের স্থানীয় স্টান্সস্ট্যাড আশ্রয়কেন্দ্রে রাখার সিদ্ধান্ত হয়।

পড়ুন>> সুইজারল্যান্ডে আশ্রয় কেন্দ্রে র্নিযাতনের শিকার শরণার্থীরা, অ্যামনেস্টির প্রতিবেদন

অভিবাসীদের সাথে ইটালিতে বসবাসকারী একজন সন্দেহভাজন মানবপাচাররীকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি ২৭ বছর বয়সি গাম্বিয়ার নাগরিক। তার বিরুদ্ধে মানবপাচারের অভিযোগে তদন্ত শুরু হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে থানায় নিয়ে যাওয়া হলে তিনি জেনেশুনে অভিবাসীদের পরিবহনের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ইটালি-ফ্রান্স সীমান্তে ব্যাপক কড়াকড়ির কারণে মানবপাচারকারীরা অভিবাসীদের সুইজারল্যান্ড ভূখন্ড পাড়ি দিয়ে ফ্রান্সে প্রবেশ করানোর চেষ্টা করলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তারা ব্যর্থ হন। 

পড়ুন>>সুইজারল্যান্ডে শরণার্থীদের নিয়ে প্রতীকী সংসদ

সুইজারল্যান্ড শেঙ্গেন জোনের সদস্য রাষ্ট্র হলেও এটি ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য দেশ না হওয়ায় ভিনদেশি নাম্বার প্লেট ব্যবহারকারী ভারি যানবাহনকে প্রায়ই ব্যাপক নিরাপত্তার মধ্য দিতে যেতে হয়। 


এমএইউ/এআই ( সি নিউজ, লো তঁ)


 

অন্যান্য প্রতিবেদন