মরক্কো থেকে প্রায় পাঁচ হাজার মানুষ সীমান্ত পাড়ি দিয়ে স্পেনের ছিটমহল সিউটাতে প্রবেশ করেন৷ মে ১৭, ২০২১| ছবি: আন্তনিও সেমপেরে/ইউরোপা প্রেস/পিকচার-অ্যালায়েন্স
মরক্কো থেকে প্রায় পাঁচ হাজার মানুষ সীমান্ত পাড়ি দিয়ে স্পেনের ছিটমহল সিউটাতে প্রবেশ করেন৷ মে ১৭, ২০২১| ছবি: আন্তনিও সেমপেরে/ইউরোপা প্রেস/পিকচার-অ্যালায়েন্স

প্রায় পাঁচ হাজার অভিবাসী মরক্কো থেকে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে স্পেনের ছিটমহল সিউটাতে প্রবেশ করেছেন৷ একদিনের হিসাবে যা রেকর্ড৷ এজন্য সীমান্ত ব্যবস্থাপনায় মরক্কো কর্তৃপক্ষের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে৷

সোমবার স্পেনে প্রবেশ করা এই অভিবাসীদের বড় একটি অংশই ছিল অপ্রাপ্তবয়স্ক৷ অনেকেই স্থল সীমান্ত এড়িয়ে সমুদ্র সাঁতরে উপকূল দিয়ে সিউটাতে প্রবেশ করেন৷ বাকিরা ভাসমান ডিঙ্গি বা সাঁতারের রিং ব্যবহার করে সেখানে পৌঁছান৷ সমুদ্র পাড়ি দিতে গিয়ে অন্তত একজন ডুবে গেছেন বলে উল্লেখ করেছে স্থানীয় গণমাধ্যম৷ রেড ক্রস অভিবাসীদের তাদের অভ্যর্থনা কেন্দ্রে নিয়ে গেছে৷ 

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে আফ্রিকার দুইটি স্থলসীমান্তের একটি স্পেনের সিউটা, অন্যটি মেলিলা৷ আফ্রিকা থেকে ইউরোপে অভিবাসীপ্রত্যাশীদের অন্যতম লক্ষ্য এই দুইটি ভূমি৷ পয়লা জানুয়ারি থেকে ১৫ মে পর্যন্ত সিউটাতে ৪৭৫ অভিবাসী প্রবেশ করেন৷ তবে গত কয়েকদিনে তা কয়েকগুণ বেড়ে যায়৷ এজন্য স্থানীয় কর্তৃপক্ষ মরক্কোর সীমান্তরক্ষীদের নিয়ন্ত্রণ হ্রাসের অভিযোগ করেছেন৷ 

মরক্কো যে কারণে স্পেনের উপর ক্ষিপ্ত

সাম্প্রতিক সময়ের একটি ঘটনায় মরক্কোর সঙ্গে স্পেনের সম্পর্কের অবনতি হয়েছে৷ পশ্চিম সাহারার স্বাধীনতাকামী পলিসারিও ফ্রন্ট নেতা ব্রাহিম ঘালি করোনার চিকিৎসা নিচ্ছেন উত্তর স্পেনে৷ মানবিক কারণে তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলে যুক্তি দিয়েছে স্পেন৷ বিষয়টি ভালোভাবে নিচ্ছে না মরক্কো৷ পশ্চিম সাহারাকে মরক্কো থেকে আলাদা করার জন্য দীর্ঘদিন ধরে লড়ছে পলিসারিও ফ্রন্ট৷ গত মাসে মরক্কোর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, স্পেন যা করেছে তা ‘অংশীদারিত্বমূলক ও ভালো প্রতিবেশিসুলভ’ নয়৷ এই ঘটনার ‘পরিণতির’ বিষয়ে পরে সতর্ক করে তারা৷ 

এই ঘটনার জেরে উপকূলীয় অঞ্চলে মরক্কো তাদের পাহারা শিথিল করেছে বলে মনে করেন নর্দার্ন অবসারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস এর প্রধান মোহাম্মেদ বেন আইশা৷ বার্তা সংস্থা এপিকে তিনি বলেন, ‘‘অঞ্চলটি সাধারণত নিরাপত্তা বাহিনীর নজরদারিতে থাকে৷ সেখানে বেড়া ডিঙ্গিয়ে বা সাঁতরে পার হওয়ায় সাধারণত বাধা দেয়া হয়৷’’

স্প্যানিশ গণমাধ্যমের প্রকাশিত ছবিতে দেখা গেছে মানুষ উপকূলের পাথর ডিঙ্গিয়ে দক্ষিণপূর্বের তারাজাল সৈকতের দিকে ছুটছেন৷ আরেকটি ভিডিওতে রেডক্রসের একটি মজুদাগারের বাইরে নিবন্ধনের জন্য যুবকদের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে৷ 

স্পেনের প্রতিক্রিয়া

সোমবার স্পেনের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তারা ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও মরক্কো সম্পর্কিত অভিবাসন নীতি নিয়ে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে৷ সেখানে কয়েকশো কর্মকর্তাকে নিয়োগ দিয়েছে দেশটি যাতে যথাযথ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দ্রুত তাদেরকে ফেরত পাঠানো যায়৷ 

অর্থ আর পুলিশ ও সেনা প্রশিক্ষণের বিনিময়ে স্পেনমুখী অভিবাসন ঠেকাতে মাদ্রিদের সঙ্গে সহযোগিতা করে আসছিল রাবাত৷ উগ্রবাদ মোকাবিলায়ও মরক্কোর গোয়েন্দা বাহিনীর উপর নির্ভর করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন৷

স্পেন মরোক্কানদের আশ্রয় আবেদন গ্রহণ করে না৷ তবে অভিবাসী একাকি শিশুদের সরকারের তত্ত্বাবধানে দেশটিতে থাকার অনুমতি দেয়া হয়৷ 

এফএস/কেএম (ডয়চে ভেলে)

 

অন্যান্য প্রতিবেদন