ডেনমার্কে ২০১৫ থেকে ২০১৯ সাল অবধি অভিবাসন মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ইনগের স্টজবার্গ৷ ছবি: এএফপি
ডেনমার্কে ২০১৫ থেকে ২০১৯ সাল অবধি অভিবাসন মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ইনগের স্টজবার্গ৷ ছবি: এএফপি

অভিবাসী দম্পতিদের অবৈধভাবে আলাদা করার অভিযোগে মঙ্গলবার ডেনমার্কের সাবেক এক অভিবাসনমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিচার শুরু হয়েছে৷ দেশটির অভিশংসন আদালতে, যেটি সচরাচর ব্যবহার করা হয় না, এই বিচার হচ্ছে৷

২৬ জন বিচারকের সমন্বয়ে তৈরি এই বিশেষ আদালতে সাধারণত দেশটির সাবেক বা বর্তমান সংসদ সদস্যদের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগের বিচার করা হয়৷

সাবেক মন্ত্রী ইনগের স্টজবার্গ মানবাধিকার বিষয়ক ইউরোপীয় সনদ লঙ্ঘন করেছেন কিনা তা নির্ধারণ করবেন আদালত৷

আইনের অধ্যাপক ফ্রেডেরিক ভাগে এই বিষয়ে জানান যে, ডেনমার্কে গত এক শতকেরও বেশি সময়ের মধ্যে মাত্র তিনবার এই আদালত বসেছে৷ ফলে সাবেক অভিবাসনমন্ত্রীর বিরুদ্ধে করা মামলার বিচার শুরু হওয়াকে ‘ঐতিহাসিক’ ঘটনা হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন তিনি৷

স্টজবার্গ ২০১৬ সালে ২৩টি দম্পতিকে আলাদা হওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন যেখানে নারীর বয়স আঠারো বছরের কম ছিল, যদিও দম্পতিদের মধ্যে বয়সের ব্যবধানও কম ছিল৷ আলাদা হওয়ার নির্দেশনা দেয়ারক্ষেত্রে তিনি প্রতিটি দম্পতির বিষয়াদি আলাদা আলাদাভাবে যাচাই করা হয়নি৷

তিনি এই বিষয়ে সংসদীয় কমিটিকে ‘‘মিথ্যা এবং/বা বিভ্রান্তিকর’’ তথ্য দিয়েছিলেন বলেও অভিযোগ রয়েছে৷ ৪৮ বছর বয়সি সাবেক এই মন্ত্রী অবশ্য তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন৷

ডেনমার্কে ২০১৫ থেকে ২০১৯ সাল অবধি অভিবাসন মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ইনগের স্টজবার্গ৷ অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাকে শাস্তি হিসেবে জরিমানা করা হতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা৷

এআই/এসএস (এএফপি)

 

অন্যান্য প্রতিবেদন