ইউরোপীয় ইউনিয়নের স্বরাষ্ট্র বিষয়ক কমিশনার ইলভা জোহানসন। ছবিঃ টুইটার
ইউরোপীয় ইউনিয়নের স্বরাষ্ট্র বিষয়ক কমিশনার ইলভা জোহানসন। ছবিঃ টুইটার

ইউরোপীয় ইউনিয়ন জানিয়েছে, জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক হাইকমিশন ইউএনএইচসিআর আফগানিস্তান থেকে ৪২,৫০০ আফগান শরণার্থীকে ক্রমান্বয়ে পাঁচ বছরের মধ্যে নিয়ে আসার যে প্রস্তাবনা দিয়েছে সেটি পূরণ করা সম্ভব।

ইউরোপের দেশগুরোর জোট ইইউ বৃহস্পতিবার বলেছে, জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক হাইকমিশনারের দাবি অনুযায়ী পাঁচ বছরের মধ্যে ৪২,৫০০ আফগান শরণার্থীকে গ্রহণ করা সম্ভব।  

যদিও এ ব্যাপারে যেকোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জোটের সদস্যদের ওপর নির্ভর করবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের স্বরাষ্ট্র বিষয়ক কমিশনার ইলভা জোহানসন বলেন, ‘‘আমি মনে করি এটা বাস্তবায়ন করা সম্ভব।’’

জোহানসন স্বীকার করেন, ‘‘এই পরিমাণ শরণার্থী গ্রহণ করলে আফগান সংকট সমাধান হবে না, তবে এটি আমাদের নৈতিক দায়িত্ব এবং আজকের দিনে এটা আমাদের কাজ।’’


একটি ফোরামে ভার্চুয়াল ভাষণে ইউএনএইচসিআর, আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা ও ইইউ সদস্য রাষ্ট্রগুলো প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে তিনি বলেন, ‘‘আফগানিস্তানে থাকা আরও অনেক নাগরিকের আন্তর্জাতিক সুরক্ষার প্রয়োজন আছে৷’’

জোহানসন উল্লেখ করেন, “জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাইকমিশনার এবং ইটালীয় কূটনীতিক ফিলিপ্পো গ্র্যান্ডি অনুমান করেছেন যে, ইতিমধ্যে প্রায় ৮৫ হাজার আফগান নাগরিক প্রতিবেশী দেশগুলোতে শরণার্থী হিসেবে আছেন। সেসব দেশে আফগানদের আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে পুনর্বাসনের প্রয়োজন হবে। ইইউর উচিত সেই সংখ্যার অন্তত অর্ধেক নাগরিকের ব্যাপারে চিন্তা করা।’’

এছাড়া তিনি মনে করেন, আফগানিস্তানের অভ্যন্তরে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকা ব্যক্তিদের সরিয়ে নেওয়া অত্যন্ত জরুরী। যাদের মধ্যে মহিলা সাংবাদিক বা বিচারকও রয়েছেন।

জোহানসন আরও উল্লেখ করেন, ‘‘মার্কিন সেনা প্রত্যাহার এবং তালেবান শাসনের প্রত্যাবর্তনের পরে চলা বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির মধ্যেই ২৪ টি ইইউ সদস্য দেশ ইতিমধ্যে ২২,০০০ আফগানকে নিয়ে এসেছে।’’

তিনি বলেন, হুমকিতে থাকা আফগানদের চলমান সহায়তা কার্যক্রমে ইইউসহ অন্যান্য ব্লক যে প্রস্তুত এটি তার একটি বার্তা।


এমএইউ/আরআর


 

অন্যান্য প্রতিবেদন