পোল্যান্ড সীমান্ত দিয়ে গত কয়েকদিন ধরে জার্মানিতে প্রবেশ করছেন অভিবাসনপ্রত্যাশীরা৷ ফটো: কাসপের পেমপেল৷
পোল্যান্ড সীমান্ত দিয়ে গত কয়েকদিন ধরে জার্মানিতে প্রবেশ করছেন অভিবাসনপ্রত্যাশীরা৷ ফটো: কাসপের পেমপেল৷

ইউরোপের বিভিন্ন দেশ হয়ে অবৈধ পথে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের আগমনের ঘটনা বাড়তে থাকায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জার্মান সরকার৷

এক প্রতিবেদনকে উদ্ধৃত করে বার্তা সংস্থা ডিপিএ জানায়, ইউরোপের বিভিন্ন দেশ হয়ে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের অবৈধ পথে জার্মানিতে প্রবেশের সংখ্যা বাড়ছে৷

তাছাড়া, গোপনে ট্রাকে করে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ইউরোপের বিভিন্ন দেশে প্রবেশের সংখ্যাও বাড়ছে৷

এদিকে, ইউরোপের দেশ বেলারুশ থেকে পোল্যান্ড হয়ে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের জার্মানিতে প্রবেশের ঘটনাও গত কয়েক সপ্তাহ ধরে বাড়ছে বলে জানিয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যম৷  

পোল্যান্ড সীমান্ত দিয়ে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের জার্মানিতে প্রবেশের ঘটনার মাঝেই দেশটির বিদায়ী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হর্স্ট জেহোফার জানান, দক্ষিণ ইউরোপের কয়েকটি দেশ হয়ে জার্মানিতে অবৈধভাবে প্রবেশের ঘটনা বাড়ছে৷ বিদায়ী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসময় ডাবলিন চুক্তি ভেঙে পড়েছে বলেও মন্তব্য করেন৷

ডাবলিন চুক্তি অনুযায়ী, অভিবনপ্রত্যাশীরা যে দেশেই থাকুক না কেন, তারা প্রথমে ইউরোপের যে দেশে প্রবেশ করেছিল, সে দেশে ফেরত পাঠানোর কথা রয়েছে৷

এদিকে, পোল্যান্ড সীমান্ত দিয়ে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের প্রবেশের ঘটনায় বেলারুশকে দায়ী করছে জার্মান সরকার৷

বেলারুশের উপর ইউরোপের আরোপিত নিষেধাজ্ঞার প্রতিবাদেই অভিবাসনপ্রত্যাশীদের সীমান্তের ওপারে অর্থাৎ পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্র যেমন পোল্যান্ডে আসার সুযোগ করে দিচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে৷

নির্বাচনে অনিয়ম এবং দেশটিতে মানবাধিকার পরিস্থিতির অবনমনের অভিযোগে বেলারুশের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন৷

তাছাড়া জার্মানিতে গ্রিস থেকে আসা অভিবাসনপ্রত্যাশীদের গ্রিসে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দেশটির একটি আদালত৷ ফেরত পাঠানো হলে এ অভিবাসনপ্রত্যাশীরা গ্রিসে ‘প্রতিকূল পরিস্থিতির শিকার’ হতে পারে বলে মত আদালতের৷

জার্মান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হর্স্ট জেহোফার অবশ্য গ্রিসকে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের থাকার সুযোগ সুবিধা দেওয়ার জন্য এবং এ বিষয়ে জার্মানির সহযোগিতা গ্রহণের কথা বলছে৷    

আরআর/এসএস

 

অন্যান্য প্রতিবেদন