লিবিয়া থেকে দেশে ফিরে যাচ্ছেন একদল বাংলাদেশি | ছবি: হামজা আল আহমার/আনাদোলু এজেন্সি/পিকচার অ্যালায়েন্স
লিবিয়া থেকে দেশে ফিরে যাচ্ছেন একদল বাংলাদেশি | ছবি: হামজা আল আহমার/আনাদোলু এজেন্সি/পিকচার অ্যালায়েন্স

জাতিসংঘের অভিবাসন বিষয়ক সংস্থা আইওএম-এর উদ্যোগে স্বেচ্ছায় ঢাকা ফিরে যাচ্ছেন লিবিয়ায় অবস্থানরত বাংলাদেশি অভিবাসীদের একাংশ৷ অন্তত ১৩৪ জন বাংলাদেশি সম্প্রতি দেশে ফিরে গেছেন৷


লিবিয়া সরকারের কাছ থেকে অনুমতি পাওয়ার পর গত সপ্তাহে পুনরায় মানবিক উড়াল চালু করে আইওএম৷ এরপর ২১ অক্টোবর গাম্বিয়ার ১২৭ অভিবাসী স্বেচ্ছায় দেশে ফিরে যায়৷ সেটি ছিল আগস্টের পর দেশটি থেকে এরকম প্রথম উড়াল৷ বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি নাগরিকও মঙ্গলবার আইওএম এর সহায়তায় দেশে ফিরে গেছেন৷ 

আইওএম জানিয়েছে, ১০ হাজারের বেশি অভিবাসী সংস্থাটির সহায়তায় দেশে ফিরে যেতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে৷ এদের অনেকে বর্তমানে লিবিয়ার বিভিন্ন জনাকীর্ণ ডিটেনশন সেন্টারে আটক রয়েছেন৷  

লিবিয়ায় আইওএম-এর প্রধান ফেডরিকো সোডা এই বিষয়ে বলেন, ‘‘লিবিয়া সরকার আইওএম এর অভিবাসীদের জন্য স্বেচ্ছায় দেশে ফেরার এই কর্মসূচির উপর থেকে স্থগিতাদেশ তুলনায় খুবই ভালো হয়েছে৷ কেননা লিবিয়াত্যাগে আগ্রহী অনেক অভিবাসী এই কর্মসূচির আওতায় নিরাপদে, বৈধভাবে এবং সসম্মানে দেশে ফিরে জীবন নতুন করে শুরু করতে পারছেন৷’’

এদিকে, লিবিয়ায় অভিবাসীদের উপর নির্মমভাবে নির্যাতন চালানোর অভিযোগে এক ব্যক্তির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং জাতিসংঘ৷ ওসামা আল কুনি ইব্রাহীম দেশটির রাজধানী ত্রিপোলি থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে একটি ডিটেনশন সেন্টার পরিচালনা করছেন৷ 

এআই/কেএম (ডিপিএ, এএফপি)

 

অন্যান্য প্রতিবেদন