বুলগেরিয়া-তুরস্ক সীমান্তের একটি অংশের দৃশ্য। ছবিঃ এএফপি
বুলগেরিয়া-তুরস্ক সীমান্তের একটি অংশের দৃশ্য। ছবিঃ এএফপি

ক্রমবর্ধমান অভিবাসী চাপের কারণে তুরস্ক সীমান্ত পুলিশের সমর্থনে ৩৫০ সৈন্য মোতায়েন করেছে বুলগেরিয়া। সোমবার বুলগেরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জর্জি প্যানায়োটভ এ ঘোষণা দেন।

বুলগেরিয়ার বিটিভিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বলেন,  “সোমবার থেকে সীমান্ত পুলিশকে সহায়তা করার জন্য বুলগেরিয়া-তুর্কি সীমান্তে ৩৫০ জন সেনা থাকবে। তাদের সাথে ৪০ ইউনিটের বিভিন্ন সরঞ্জাম পাঠানো হয়েছে।”

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মতে, জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বুলগেরিয়ায় ৬,৫০০ জনেরও বেশি লোককে অবৈধভাবে প্রবেশের কারণে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদের বেশিরভাগ আফগানিস্তান থেকে আসা। এটি ২০২০  সালের একই সময়ের তুলনায় তিনগুণেরও বেশি।

বুলগেরিয়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) বহিঃসীমান্তে অবস্থিত।  ইউরোপে পৌঁছতে ইচ্ছুকদের জন্য এটি অন্যতম প্রধান পথগুলোর একটি পথে।

২৫৯ কিলোমিটার দীর্ঘ  বুলগেরিয়ান-তুর্কি সীমান্তটি কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে ঘেরা থাকলেও বিভিন্ন অংশে এই বেড়াটি বেশ ক্ষতিগ্রস্ত থাকায় অভিবাসীরা এ পথে প্রবেশের চেষ্টা চালিয়ে থাকে।

বুলগেরিয়া পার্লামেন্ট গত আগস্টে গ্রিস এবং তুরস্ক সীমান্তে বিশেষ সীমান্ত প্রাচীর নির্মানের উদ্দ্যেশে ৪০০ থেকে ৭০০ সৈন্য মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

ইউরোপীয় ইউনিয়ের এই  দরিদ্রতম সদস্য রাষ্ট্রটি কখনই বিপুল সংখ্যক আশ্রয়প্রার্থী নেয়নি। বুলগেরিয়া প্রবেশ করা বেশিরভাগ আশ্রয়প্রার্থী তাদের আশ্রয় আবেদনের সিদ্ধান্ত পাওয়ার আগেই চলে যায়।


এমএইউ/এসএস  (এএফপি)







 

অন্যান্য প্রতিবেদন