১১ নভেম্বর ২০২১ তারিখে প্রায় ১ হাজার অভিবাসন প্রত্যাশী যুক্তরাজ্যে প্রবেশ করেছে। ছবিঃ লা মনশঁ এ মের দ্যু নর্দ ম্যারিটািইম প্রেফেকচুর।
১১ নভেম্বর ২০২১ তারিখে প্রায় ১ হাজার অভিবাসন প্রত্যাশী যুক্তরাজ্যে প্রবেশ করেছে। ছবিঃ লা মনশঁ এ মের দ্যু নর্দ ম্যারিটািইম প্রেফেকচুর।

প্রায় ১ হাজার অভিবাসীর আগমনসহ বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যে অভিবাসী প্রবেশে নতুন রেকর্ড ঘটেছে। অপরদিকে, ফরাসি কর্তৃপক্ষ শুক্রবার ইংলিশ চ্যানেলে তিনজনের নিখোঁজ হওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। স্থানীয় লা মনশঁ ম্যারিটাইম প্রেফেকচুর জানিয়েছে, অনুসন্ধান অভিযানে এখনো অভিবাসীদের শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।

চ্যানেলের ফরাসি উপকূলে উদ্ধার অভিযান পর্যবেক্ষণ দপ্তর বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর, সকালের শুরুতে জানিয়েছিল, ”অভিযানে কালে উপকূল থেকে দুটি কায়াক বা ভাসমান হাল্কা নৌকা খুঁজে পেয়েছে ফরাসি জাতীয় পুলিশ বা জেন্ডারমেরি।"

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় লা মনশঁ ও মের দ্যু নর্দ ম্যারিটাইম প্রেফেকচুড় একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, "জাতীয় জেন্ডারমেরির দুটি হাল্কা নৌকা উদ্ধার করেছে যেগুলো কালে থেকে যাত্রা করেছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে দুর্ভাগ্যজনক ভাবে নৌকাগুলো ইঙ্গিত দিচ্ছে যে সেখানে থাকা তিনজন সাগরে নিখোঁজ হয়েছে।"

কর্তৃপক্ষের দ্রুত হস্তক্ষেপে, ফরাসি নৌবাহিনীর একটি হেলিকপ্টার এবং একটি বিশেষ নৌকা মোতায়েন করে অভিযান চালানো সত্ত্বেও, তিনজনকে খুঁজে পাওয়া যায়নি"।

ব্যর্থ অনুসন্ধানটি বৃহস্পতিবার রাতের বেলায় সাগরে প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে বাধাগ্রস্ত হয়েছিল এবং এটি শুক্রবার পুনরায় হবে না বলে জানিয়েছে প্রেফেকচুর।



বৃহস্পতিবার দিনের বেলায় চ্যানেলের আবহাওয়া তেমন তীব্র ছিল না। এই শান্ত আবহাওয়া অনেক অভিবাসনপ্রত্যাশীকে ইংরেজ উপকূলের দিকে যাত্রা করতে প্ররোচিত করেছিল।

যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতরের তথ্য অনুযায়ী, প্রায় এক হাজার মানুষ ইংল্যান্ডে প্রবেশ করেছেন। সংখ্যার দিক দিয়ে এটি একদিনে নতুন রেকর্ড গড়েছে। বিবিসি জানিয়েছে, ৩ নভেম্বর একসাথে প্রায় ৮৫৩জন অভিবাসনপ্রত্যাশীকে ব্রিটিশ উপকূলে অবতরণের মাধ্যমে নতুন এই রেকর্ড ঘটেছে। 

একই সময়ে ফরাসি বাহিনী বেশ কয়েকটি উদ্ধার অভিযান চালায়। চ্যানেলে ঝুঁকিতে থাকা দুই শিশুসহ ৫২ জনকে বুধবার থেকে বৃহস্পতিবার রাতে ফ্রান্সের উত্তরে ফিরিয়ে আনা হয়।



এমএইউ/এসএস




 

অন্যান্য প্রতিবেদন