আশ্রয়প্রার্থীদের আশ্রয়ের অধিকারের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন অ্যাজেন্সি ফর অ্যাসাইলাম নামে একটি নতুন দপ্তর চালু করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন৷ ছবি: ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন অ্যাজেন্সি ফর অ্যাসাইলাম৷
আশ্রয়প্রার্থীদের আশ্রয়ের অধিকারের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন অ্যাজেন্সি ফর অ্যাসাইলাম নামে একটি নতুন দপ্তর চালু করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন৷ ছবি: ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন অ্যাজেন্সি ফর অ্যাসাইলাম৷

ইউরোপের দেশগুলোতে আসা আশ্রয়প্রার্থীদের আশ্রয়ের অধিকারের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে একটি নতুন দপ্তর চালু করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন৷

ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন অ্যাজেন্সি ফর অ্যাসাইলাম (ইইউএএ) নামে নতুন এ দপ্তরটি ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর জন্য আশ্রয়প্রদান বিষয়ে একটি সমন্বিত ব্যবস্থা চালু করতে চায়৷

গত বুধবার থেকে কাজ শুরু করেছে নতুন এ দপ্তর৷ তার আগে ইউরোপিয়ান অ্যাসাইলাম সাপোর্ট অফিস (ইএএসও) নামে একটি দপ্তর আশ্রয়ের অধিকারের বিষয়টি দেখভাল করত৷ ২০১১ সালে চালু হওয়া এ দপ্তরের কার্যক্রম অনেক সীমিত ছিল বলে জানা গেছে৷

 নতুন চালু হওয়া ইইউএএ-এর নির্বাহী পরিচালক নিনি গ্রেগরি বলেন, দপ্তরটি এখন থেকে জোটের দেশগুলোকে আশ্রয়প্রদান বিষয়ে অধিকতর সহায়তা প্রদান করতে পারবে৷

এদিকে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর-এর অ্যাসিস্ট্যান্ট হাই কমিশনার গ্রিলান ট্রিগু নতুন দপ্তর গঠনের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানান৷


 জানা গেছে, ১৭২ মিলিয়ন ইউরো বাজেটের নতুন এ দপ্তরে বর্তমানে নিয়োজিত পাঁচশ কর্মকর্তার পাশাপাশি জোটভুক্ত বিভিন্ন দেশের আরো পাঁচশ কর্মকর্তাকে ‘রির্জাভ পুলে’ রাখা হবে৷ 

পড়ুন: ইটালিতে মৌসুমি ও স্পন্সর ভিসা: বাংলাদেশিদের যা জানা প্রয়োজন

অধিকার সুরক্ষা

এক বিবৃতিতে নতুন চালু হওয়া এ দপ্তরটি জানায়, তাদের একজন ‘ফান্ডামেন্টাল রাইটস অফিসার’ থাকবেন যিনি আশ্রয়ের জন্য আবেদনকারীর বিভিন্ন সুযোগসুবিধা পাওয়ার অধিকারের বিষয়গুলো নিশ্চিত করতে কাজ করবেন৷ 

তাছাড়া দপ্তরটি একটি অভিযোগগ্রহণ ব্যবস্থা চালু করেছে৷ নতুন এ ব্যবস্থার মাধ্যমে কোনো আশ্রয়প্রার্থী যদি মনে করে যে তার অধিকার নিশ্চিত করা হয়নি, তাহলে সে বিষয়ে কাজ করা হবে৷ 

দপ্তরটির মূল কাজ হলো জোটভুক্ত দেশগুলোকে আশ্রয়প্রার্থীদের আবেদন গ্রহণ ও আবেদন যাচাইবাছাই প্রক্রিয়ায় সহায়তা করা৷ মাল্টায় স্থাপিত সদরদপ্তর ছাড়াও ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশ যেমন গ্রিস, বেলজিয়াম, ইটালি স্পেন, পোল্যান্ড ও সাইপ্রাসে এর শাখা থাকবে৷

আরআর/জেডএইচ

 

অন্যান্য প্রতিবেদন