বুলগেরিয়ার একটি শরণার্থী অভ্যর্থনা কেন্দ্র। ছবি: ইনফোমাইগ্রেন্টস
বুলগেরিয়ার একটি শরণার্থী অভ্যর্থনা কেন্দ্র। ছবি: ইনফোমাইগ্রেন্টস

বুলগেরিয়ার সীমান্তরক্ষী বাহিনী অন্তত ৮৪ জন অনিয়মিত অভিবাসীকে অর্ধনগ্ন অবস্থায় তুরস্কে ফেরত পাঠিয়েছে৷ ভুক্তভোগী অভিবাসীদের উদ্ধৃত করে একটি নিরাপত্তা সূত্র জানিয়েছে এই তথ্য।

তুরস্কের উত্তর-পশ্চিম কারক্লারেলি প্রদেশের স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর টহল চলাকালে বুলগেরিয়ার সীমান্তের কাছে কোফকাজ অঞ্চলে অর্ধনঙ্গ অনিয়মিত অভিবাসীদের একটি দল দেখতে পায়। 

গণমাধ্যমের সাথে কথা বলারক্ষেত্রে বিধিনিষেধের কারণে নাম প্রকাশ না করার শর্তে নিরাপত্তা বাহিনীর সূত্রটি রোববার এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। 

সূত্রটি আরও জানায়, বুলগেরিয়া থেকে ফিরিয়ে দেয়া এসব অনিয়মিত অভিবাসীরা আফগানিস্তান, মরক্কো, সিরিয়া এবং ইরানের নাগরিক। তারা বস্তা এবং ব্যাগ গায়ে দিয়ে ঠান্ডা আবহাওয়া থেকে নিজেদের রক্ষা করার চেষ্টা করছিল।

ভূক্তভোগী অভিবাসীরা জানান, তারা গ্রিস হয়ে বুলগেরিয়ায় গিয়েছিলেন। পরে বুলগেরিয়ার পুলিশের হাতে ধরা পড়লে সেখানকার নিরাপত্তা বাহিনী তাদের জিনিসপত্র কেড়ে নিয়ে অর্ধনগ্ন অবস্থায় তুরস্কের দিকে ফিরিয়ে দেয়।

এছাড়া, অন্য একটি পৃথক ঘটনায় তুরস্কের কোফকাজ অঞ্চল থেকে ১০৩ জন আফগান, মরক্কান, সিরীয়, টিউনিসিয়ান এবং ইরানি অনিয়মিত অভিবাসীদের একটি দলকে গ্রেপ্তার করে তুর্কি নিরাপত্তা বাহিনী। তবে এই দলটিকে পুশব্যাক করা হয় নি। অনিয়মিত অবস্থায় তুরস্কে অবস্থান করছিলেন ১০৩ সদস্যের অভিবাসী দলটি। গ্রেপ্তারের পর অভিবাসীদের নিয়ম অনুযায়ী একটি প্রাদেশিক প্রত্যাবাসন কেন্দ্রে স্থানান্তর করা হয়।

উল্লেখ্য, ইউরোপে প্রবেশ করতে চাওয়া অনিয়মিত অভিবাসীদের জন্য তুরস্ক একটি মূল ট্রানজিট পয়েন্ট। 


এমএইউ/এআই 


 

অন্যান্য প্রতিবেদন