এক মাসেরও বেশি সময় ধরে অনশনে থাকা একজন আশ্রয়প্রার্থীকে, বেলজিয়াম ইউনিভার্সিটি ইউএলবি-এর ক্যাম্পাসের স্বাস্থ্যকর্মীরা হাসপাতালে নিয়ে যান৷ ছবি: রয়টার্স
এক মাসেরও বেশি সময় ধরে অনশনে থাকা একজন আশ্রয়প্রার্থীকে, বেলজিয়াম ইউনিভার্সিটি ইউএলবি-এর ক্যাম্পাসের স্বাস্থ্যকর্মীরা হাসপাতালে নিয়ে যান৷ ছবি: রয়টার্স

বেলজিয়ান সংবাদমাধ্যম ভিআরটি জানিয়েছে, মার্চ মাসে ৬৮০ জন আফগান নাগরিককে বেলজিয়াম ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ৷ শরণার্থী বিষয়ক দপ্তর মনে করে ২০২১-এর আগস্টে তালেবান আফগানিস্তানে ক্ষমতায় আসার পর পরিস্থিতি অনেকটা বদলে গিয়েছে৷

কমিশনার জেনারেল ভিআরটি-কে বলেছেন, ‘‘সহিংসতার ঘটনা ঘটলেও সবাইকে তালেবান ‘টার্গেট’ করছে না৷ কিছু নির্দিষ্ট ‘প্রোফাইল’-কে টার্গেট করা হচ্ছে৷’’

দ্য ব্রাসেলস টাইমসে প্রতিবেদনে কমিশনার জেনারেল ফান ডেন বুল্কের বক্তব্যের উল্লেখ রয়েছে৷ ফান ডেন ওই সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, যে সব আশ্রয়প্রার্থীরা ব্যক্তিগতভাবে আফগানিস্তানে সত্যিই বিপদে পড়তে পারেন, তারা বেলজিয়ামে থাকার অনুমোদন পেয়েছেন৷ এদের মধ্যে রয়েছেন মানবাধিকার কর্মী, মানবাধিকার আইনজীবী, সাংবাদিক৷ 

অনিয়মিত অভিবাসীদের দ্রুত নিজের দেশে ফেরত পাঠাতে চায় বেলজিয়াম৷ এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য সরকার তিনটি নতুন আটক কেন্দ্র চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷

বেলজিয়ান সংবাদমাধ্যম ভিআরটি এনডব্লিউএসের রিপোর্ট বলছে, অনিয়মিত অভিবাসীদের ২০২৪ থেকে ২০২৯ সালের মধ্যে বেলজিয়াম থেকে দেশে ফেরত পাঠাতে কঠোর পদক্ষেপ করেছে কর্তৃপক্ষ৷

বেলজিয়াম কর্তৃপক্ষের মতে, প্রতি বছর আনুমানিক ২৪ হাজার জন অভিবাসীকে বেলজিয়াম ছেড়ে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়৷তবে তাদের মধ্যে মাত্র এক-চতুর্থাংশ অভিবাসী নিজ দেশে ফিরে গিয়েছেন৷


আরকেসি/কেএম (রয়টার্স))

 

অন্যান্য প্রতিবেদন