আটলান্টিক মহাসাগর পাড়ি দিয়ে মরক্কোসহ আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ থেকে অভিবাসনপ্রত্যাশীরা ইউরোপে পৌঁছার চেষ্টা করে থাকেন। ফাইল ফটো: সাসেমান।
আটলান্টিক মহাসাগর পাড়ি দিয়ে মরক্কোসহ আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ থেকে অভিবাসনপ্রত্যাশীরা ইউরোপে পৌঁছার চেষ্টা করে থাকেন। ফাইল ফটো: সাসেমান।

পশ্চিম সাহারা উপকূলের উত্তর আটলান্টিক মহাসাগরে নৌকাডুবিতে অন্তত ৪৪ জন অভবাসনপ্রত্যাশী নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের সহায়তাকারী সংস্থা কামিনান্দো ফ্রোন্তেরাস।

নৌকাডুবির এঘটনায় ১২ জন অভিবাসনপ্রত্যাশী বেঁচে ফিরেছেন বলে জানা গেছে। 

বেসরকারি সংস্থা কামিনান্দো ফ্রোন্তেরাস জানায়, নৌকাডুবিতে নিহতদের মধ্যে ৭ জনের মৃতদের উদ্ধার করা হয়েছে।  

আটলান্টিক মহাসাগর সংলগ্ন পশ্চিম সাহারার এই উপকূলীয় অঞ্চলটিকে নিজেদের বলে দাবি করে উত্তর আফ্রিকার দেশ মরক্কো। তবে নৌকাডুবিতে নিহতের ঘটনার বিষয়ে মরক্কো সরকারের পক্ষ থেকে কোনো বিবৃতি দেওয়া হয়নি। 

এদিকে কামিনান্দো ফ্রোন্তেরাস জানায়, এই অভিবাসনপ্রত্যাশীরা কোথায় যাচ্ছিলেন, কিংবা কোথা থেকে এবং ঠিক কখন সমুদ্রযাত্রা শুরু করেছিলেন সে বিষয়ে বিস্তারিত জানা যায়নি।  

তবে পশ্চিম সাহারা উপকূল এবং মরক্কো থেকে নৌকায় করে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ঝুঁকি নিয়ে স্পেনের ক্যানারি দ্বীপে পৌঁছানোর চেষ্টা নতুন নয়। 

চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে অন্তত ১৪ হাজার সাতশ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে আটক করা হয়, যারা মরক্কো থেকে অনিয়মিত পথে ইউরোপের দেশ স্পেনে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন। তাছাড়া এই সময়ে মরক্কো সরকার অন্তত ৫২টি মানবপাচার চক্রকে চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়।   

গত শুক্রবার মরক্কো ও স্পেন এক যৌথ বিবৃতিতে অনিয়মিত পথে অভিবাসন ঠেকাতে একসাথে কাজ করার ঘোষণা দেয়।

আরআর/এসিবি (এএফপি) 

 

অন্যান্য প্রতিবেদন