ইটালির একটি খামারে কাজ করছেন শ্রমিকরা। ফটো: কোলদিরেত্তি বাসিলিকাতা
ইটালির একটি খামারে কাজ করছেন শ্রমিকরা। ফটো: কোলদিরেত্তি বাসিলিকাতা

আফ্রিকা থেকে আসা শ্রমিকদের শোষণ করার অভিযোগে গত সপ্তাহে ইটালির উত্তরাঞ্চলীয় পাদুয়া শহর থেকে মরক্কোর এক নাগরিককে আটক করেছে পুলিশ৷

আটক হওয়া ব্যক্তি আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ থেকে আসা ২৩ জন শ্রমিককে কাজ দিয়ে তাদের নানাভাবে শোষণ করছিলেন বলে জানান তদন্তকারীরা৷

পুলিশ পাদুয়া শহরের শ্রম পরিদর্শকের সহায়তায় তাকে আটক করে৷ শ্রমিকদের কাছ থেকে পাওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে ২০২০ সাল থেকে তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলছিল৷ 

দিনে ১৫ ঘণ্টা কাজ

পুলিশ জানায়, আটক হওয়া ব্যক্তি মরক্কো, সেনেগাল ও গাম্বিয়া থেকে আসা ২৩ জন অভিবাসনপ্রত্যাশীকে ইটালির বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ করে৷ কাজ করতে গিয়ে ওই শ্রমিকরা নানা ধরনের শোষণের শিকার হতে থাকেন৷ 

এক সময় এই ব্যক্তিকে অনুসরণ করতে থাকে পুলিশ৷ তখন শ্রমিকরাও পুলিশকে এ বিষয়ে তথ্য দিয়ে সাহায্য করে৷

তদন্তকারীরা জানান, দুর্দশার সুযোগ নিয়ে শ্রমিকদের নানা ধরনের শোষণ, যেমন কম বেতন দেওয়া, অতিরিক্ত সময় খাটানো ইত্যাদি করা হতো৷ ঘণ্টা প্রতি মাত্র পাঁচ ইউরো মজুরি দেওয়া হতো শ্রমিকদের, যা স্থানীয় আইন অনুযায়ী অনেক কম৷ তাছাড়া এসকল শ্রমিককে দিনে ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা কাজ করানো হতো৷ কখনো কখনো তাদেরকে দিনে ১৫ ঘণ্টাও কাজ করতে হতো৷ 

তদন্তে আরো বেরিয়ে আসে যে, এসকল শ্রমিককে এমন বাসস্থানে থাকতে দেওয়া হতো যেখানে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অনেক বেশি লোক বাস করেন৷ তাছাড়া বাসস্থানগুলোতে গ্যাস এবং পানির ব্যবস্থাও নেই৷ কিন্তু থাকার খরচ বাবদ তাদেরকে প্রতিমাসে একশ ৫০ ইউরো দিতে বাধ্য করা হতো৷

 আরআর/এসিবি (আনসা)

 

অন্যান্য প্রতিবেদন