পোল্যান্ডের একটি মানবিক সহায়তা কেন্দ্রে অবস্থান করছেন ইউক্রেন থেকে আসা শরণার্থীরা৷ ফাইল ফটো: ডারেত ডেলমানোভিকস: ইপিএ
পোল্যান্ডের একটি মানবিক সহায়তা কেন্দ্রে অবস্থান করছেন ইউক্রেন থেকে আসা শরণার্থীরা৷ ফাইল ফটো: ডারেত ডেলমানোভিকস: ইপিএ

ইউরোপের দেশগুলোতে এই মুহূর্তে ৪৮ লাখেরও বেশি ইউক্রেনীয় অবস্থান করছেন বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ৷

সংস্থাটি বলছে, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া হামলা চালানোর পর ইউক্রেন থেকে প্রায় ৭৩ লাখ সীমান্ত অতিক্রমের ঘটনা ঘটেছে৷ সীমান্ত অতিক্রমের এসকল ঘটনায় ইউক্রেন থেকে যুদ্ধ এড়াতে শরণার্থীরা অন্য দেশে আশ্রয় নিয়েছেন৷ 

একই সময়ে আরো প্রায় ২৩ লাখ সীমান্ত অতিক্রমের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ৷ তবে এসব অতিক্রমের ঘটনায় মূলত বিদেশ থেকে ইউক্রেনে প্রবেশের ঘটনা ঘটেছে৷   

সীমান্ত পাড়ি দিয়ে ইউক্রেন ত্যাগ করা এবং ইউক্রেনে প্রবেশ করার এই ঘটনা একই ব্যক্তি এক বা একাধিকবার করে থাকতে পারেন৷ এ বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারেনি জাতিসংঘ৷

তাছাড়া যারা ইউক্রেনে ফিরে গেছেন, তারা সেখানে স্থায়ীভাবে থাকবেন, নাকি আবারো সীমান্ত পাড়ি দিয়ে দেশের বাইরে চলে যাবেন সে বিষয়েও নিশ্চিত হওয়া যায়নি৷ 

তবে জাতিসংঘ বলছে, দেশ ছেড়ে আসা ইউক্রেনীয়দের বেশিরভাগই প্রতিবেশী দেশ পোল্যান্ডে অবস্থান করছেন৷ দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট ১৫ লাখ ইউক্রেনীয় আশ্রয় নিয়েছেন৷ যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে দেশটিতে প্রায় ৩৮ লাখ লোক প্রবেশ করেছিলেন, যাদের অনেকেই পরে অন্য কোনো দেশে আশ্রয় নিয়েছেন৷  

তাছাড়া ১১ লাখের মতো ইউক্রেনীয় আশ্রয় নিয়েছেন রাশিয়াতে৷ পরিসংখ্যান বলছে, সাত লাখ ৮০ হাজার ইউক্রেনীয় আশ্রয় নিয়েছেন জার্মানিতে৷ আশ্রয় দেওয়া দেশের তালিকায় আরো আছে চেক প্রজাতন্ত্র, ইটালি, স্পেনসহ নানা দেশ৷ 

আরআর/এসিবি (ডিপিএ)

 

অন্যান্য প্রতিবেদন