ইটালির পুগলিয়া অঞ্চলের বারি কেন্দ্রে আশ্রয়প্রার্থীরা৷ ফাইল ফটো: আনসা
ইটালির পুগলিয়া অঞ্চলের বারি কেন্দ্রে আশ্রয়প্রার্থীরা৷ ফাইল ফটো: আনসা

ইটালির বিদেশি ছাত্রদের, তাদের বাবা-মা ও শিক্ষকদের সংগঠন ‘স্কুল প্রায়োরিটির’ নাগরিকত্ব আইন সংশোধন বিষয়ক আন্দোলন ক্রমেই জোরদার হয়ে উঠছে৷

আইন সংশোধনের দাবিতে আন্দোলন জোরদার করতে ইতিমধ্যে দেশটির ন্যাশনাল নেটওয়ার্ক ফর সিটিজেনশিপে নিবন্ধন করেছে সংগঠনটি৷ সেই সাথে নাগরিকত্বের বিষয়ে জনগণের সচেতনতা বাড়াতে দেশজুড়ে একটি ক্যাম্পেইনও চালু করেছে তারা     

এক বিবৃতিতে সংগঠনটি জানায়, নাগরিকত্বের বিষয়ে সরকারের আইনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার এটিই প্রকৃষ্ট সময়৷ 

বর্তমান আইনে যা আছে 

নাগরিকত্ব দেওয়ার বিষয়ে সম্প্রতি একটি খসড়া আইন প্রণয়ন করেছে ইটালি সরকার৷ গত ৯ মার্চ আইনের এই খসড়াটি ইটালির পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষের সংবিধান বিষয়ক কমিশনে পাশ হয়৷ 

খসড়া এই আইনে শিশুদের নাগরিকত্ব দেয়ার বিষয়ে নতুন প্রস্তাব করা হয়৷ আগের আইনে বলা ছিল, কোনো শিশুর বাবা কিংবা মা ইটালীয় হলে শিশুদের নাগরিকত্ব প্রদান করা হবে৷ কিন্তু প্রস্তাবিত আইনে বলা হয়, শুধু ইটালিতে জন্মগ্রহণ করলেই হবে না, এ সকল শিশুদেরকে স্কুলশিক্ষা শেষ করতে হবে৷       

আইনে আরো বলা হয়, ১২ বছরের বয়সের আগে কেউ ইটালিতে এলে নাগরিকত্ব পেতে অবশ্যই তাকে ইটালির স্কুলে পাঁচ বছর অধ্যয়ন করতে হবে৷    

জানা গেছে, পশ্চিম ইউরোপের দেশ ইটালিতে আট লাখ ৭৭ হাজার অপ্রাপ্তবয়স্ক রয়েছে যারা হয় ইটালিতে জন্মগ্রহণ করেছে অথবা দেশটিতে বেড়ে উঠেছে এবং সেখানকার স্কুলে পড়াশোনা করছে৷ কিন্তু তাদের ইটালির নাগরিকত্ব নেই৷  

আন্দলনকারীরা বলছেন, নাগরিকত্ব প্রদানের বিষয়ে ইটালির এই আইন প্রাতিষ্ঠানিক বর্ণবাদকে উস্কে দেবে৷ 

প্রস্তাবিত আইন বাতিল চেয়ে তারা ইটালিতে জন্মগ্রহণকারী শিশুদের, যারা বড় হয়েছে, তাদের এবং যারা ইটালির স্কুলে পড়াশোনা করেছে, তাদের সবাইকে নাগরিকত্ব প্রদানের দাবি জানান৷

আরআর/এসিবি (আসনা)     

 

অন্যান্য প্রতিবেদন