(ফাইল ছবি ) গ্রিস থেকে সার্বিয়া সীমান্তের দিকে যাচ্ছেন অভিবাসীরা। ছবি গেটি ইমেজ/ডয়েচে ভেলে
(ফাইল ছবি ) গ্রিস থেকে সার্বিয়া সীমান্তের দিকে যাচ্ছেন অভিবাসীরা। ছবি গেটি ইমেজ/ডয়েচে ভেলে

উত্তর মেসিডোনিয়ার পুলিশ বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, গ্রিস থেকে যাত্রা করা সিরীয় অভিবাসীদের বহনকারী একটি ট্রাক উল্টে ৩৫ জন আহত হয়েছেন৷ আহতদের সবাই অনিয়মিত অভিবাসী এবং অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের চেষ্টা করছিলেন৷

বুধবার গভীর রাতে উত্তর মেসিডোনিয়ার মারভিনসি গ্রামের কাছে ৪৯ অভিবাসী নিয়ে একটি ভারী যান দুর্ঘটনায় পড়ে বলে জানিয়েছে স্থানীয় পুলিশ৷ আহত অভিবাসীদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক৷

তবে দুর্ঘটনার কারণ এখনও অস্পষ্ট জানা যায়নি৷ আহত ৩৫ জন অভিবাসীকে চিকিৎসার জন্য দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর স্ট্রুমিকা এবং গেভগেলিজার স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷

বাকিদের গ্রিসে ফেরত পাঠানোর লক্ষ্যে গেভগেলিজার একটি আটক কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷

পড়ুন>>নর্থ মেসিডোনিয়ায় কড়াকড়ি: বদলে যাচ্ছে বলকান রুট

পুলিশ গাড়িটির চালককে মানবপাচার চক্রের একজন সদস্য হিসেবে সন্দেহ করলেও দুর্ঘটনার সাথে সাথেই চালক ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান৷

পুলিশ বলেছে, গাড়িতে থাকা অভিবাসীরা উত্তর মেসিডোনিয়ার প্রতিবেশী দেশ সার্বিয়ার দিকে যাচ্ছিলেন বলে ধারণা করা হচ্ছে৷ তবে তাদের সম্ভাব্য মূল গন্তব্য ছিল পশ্চিম ইউরোপের ধনী দেশগুলো৷

পড়ুন>>মেসিডোনিয়া: এক ট্রাক থেকে ৮৬ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার

কোভিড-১৯ মহামারি চলাকালীন সময়ে আরোপিত ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা শিথিল করার ফলে সাম্প্রতিক দিনগুলোতে বহু অভিবাসী বলকান রুট ব্যবহার করার চেষ্টা করছে৷ 

পুলিশের মুখপাত্র সুজানা প্রানিকজ বার্তা সংস্থা এপিকে বলেন, চলতি বছর পুলিশ ১১ হাজার ৫০০ জনেরও বেশি মানুষকে অবৈধভাবে উত্তর মেসিডোনিয়ায় প্রবেশে বাধা দিয়েছে, যাদের ৮৮ শতাংশই গ্রিস থেকে প্রবেশের চেষ্টা করেছিল৷ 

একই সময়ে, পুলিশ ৬২ জন সন্দেহভাজন মানবচারকারীকে গ্রেপ্তার করেছে, যাদের মধ্যে ১৫ জন বিদেশি নাগরিক৷

পড়ুন>>উত্তর মেসিডোনিয়ায় দুই পাচারকারীসহ ২৪ অভিবাসী আটক

প্রানিকজ জানান, গত বছরের একই সময়ের তুলনায় আগত অভিবাসীর সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে৷ যাদের বেশিরভাগই মূলত পাকিস্তান, সিরিয়া ও ভারত থেকে আগত।


এমএইউ/এফএস


 

অন্যান্য প্রতিবেদন