ফরাসি উপকূল থেকে যুক্তরাজ্য অভিমুখে যাত্রা করা অভিবাসীদের ঠেকাতে উত্তর ফ্রান্সে ফরাসি পুলিশের টহল। ছবি: রেডিও ফ্রান্স ইন্টারন্যাশনাল
ফরাসি উপকূল থেকে যুক্তরাজ্য অভিমুখে যাত্রা করা অভিবাসীদের ঠেকাতে উত্তর ফ্রান্সে ফরাসি পুলিশের টহল। ছবি: রেডিও ফ্রান্স ইন্টারন্যাশনাল

উত্তর ফ্রান্সে অনিয়মিত অভিবাসী পরিবহনের দায়ে অভিযুক্ত এক ইরাকি পাচারকারীকে মঙ্গলবার ১৮ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেছে স্থানীয় আদালত। ২৫ জন অভিবাসীকে পাচারের অভিযোগে উত্তর ফ্রান্সের বহুল আলোচিত কালে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

কালে থেকে গ্রেপ্তার হওয়া এক ইরাকি ব্যক্তিকে ২৫ অভিবাসী পরিবহণের দায়ে ১৮ মাসের কারাদণ্ডে দন্ডিত করেছে স্থানীয় বুলন-সুর-মের অঞ্চলের বিচারিক আদালত।

৬ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার এই রায় ঘোষণা করা হয়। 

আদালত সূত্রে উত্তর ফ্রান্সের স্থানীয় দৈনিক লা ভোয়া-দ্যু-নর্দ জানিয়েছে, “এই ১৮ মাসের কারাদণ্ডের মধ্যে প্রথম ছয় মাস তাকে কারও সাথে দেখা করার সুযোগ দেয়া হবে না। পাশাপাশি এই ইরাকিকে সাজা ভোগের পর তিন বছরের জন্য ফরাসি ভূখণ্ডে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।”

পড়ুন>>উত্তর ফ্রান্সে ভুল নীতির শিকার ‘অভিবাসীরা’

সাজাপ্রাপ্ত ইরাকি নাগরিককে ২৫ আগস্ট কালের কাছে পুপ্লিং এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। 

সে সময় টহলরত পুলিশ ভোররাত একটার দিকে কম গতিতে আসা একটি ভ্যানকে দেখতে পায়। গাড়িটি পুলিশের সামনে দৃশ্যমান হওয়ার সাথে সাথেই থামানো হলে সেখান থেকে ২৫ অভিবাসী এবং অভিযুক্ত চালককে আটক করা হয়। 

গ্রেপ্তারের কয়েকদিন পর থেকেই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে বিচার কার্যক্রম শুরু হয়। শুনানি চলাকালে আসামী আদালতকে জনায়, একজন মানবপাচারকারী তাকে যুক্তরাজ্যে যাওয়ার বিনিময়ে অভিবাসীদের পরিবহণ করার প্রস্তাব দিয়েছিল।

পড়ুন>>ইইউ দেশগুলোর স্থানীয় নির্বাচনে অভিবাসীদের ভোটাধিকার

ইউরোপের অন্যান্য দেশের মতো ফ্রান্সেও অভিবাসী বহনকারীদের অপরাধমূলক নেটওয়ার্কের অন্যতম প্রধান সহযোগী হিসেবে বিবেচিত করা হয়। রাজনৈতিক নেতারাও এসব ব্যক্তিদের মানবপাচারকারী হিসেবে অভিযুক্ত করে নিয়মিত বক্তব্য দিয়ে থাকেন।

তবে, চলতি বছরের জুলাইয়ের শেষে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে ‘মানপাচারকারী’ শব্দটির ক্ষেত্রে নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন করতে বলা হয়। 

অভিবাসীদের আন্তর্জাতিক সমন্বয় প্ল্যাটফর্ম হিসেবে পরিচিত (পিআইসিইউএম) এর এই প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘মানবপাচারকারী’ যথেচ্ছ ব্যবহার বন্ধ করে প্রতিক্রিয়াশীল কৌশল থেকে বেরিয়ে আসা উচিত। গণহারে যে কাউকে মানবপাচারকারী আখ্যা দেয়া অ

পড়ুন>>অভিবাসী স্থানান্তরের ‘কার্যকর’ উদ্যোগকে স্বাগত ইটালির

অনেক অভিবাসীই তাদের লক্ষ্যে পৌঁছতে প্রয়োজনীয় অর্থ যোগাড় করতে অনেক সময় এই ইরাকি অভিযুক্তের ন্যায় অভিবাসী পরিবহনের পথ বেছে নিতে পারে। 

তেমনই একজন ইংলিশ চ্যানলে পার হয়ে যুক্তরাজ্যে অবস্থান করা ইরানি অভিবাসী মোহসেন।

তিনি ইনফোমাইগ্রেন্টসকে বলেন,

আমরা যেই বোটে চ্যানেল পাড়ি দিয়েছিলাম সেখানে ২০ জন ইরানি নাগরিক ছিলাম। যাদের মধ্যেএকজন নারী এবং একজন তুর্কি যাত্রী ছিল। আমাদের দলে যারা কোনো অর্থ পরিশোধ করেনি তাদেরকে বিনিময়ে বোট চালাতে হয়েছিল।


পিআইসিইউএম এর অভিবাসন বিশেষজ্ঞ মার্টা জিওনকো ইনফোমাইগ্রেন্টসকে জানান, “আমরা ইউরোপীয় কমিশনের কাছে বছরের পর বছর ধরে মানবপাচারকারী হিসেবে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট তথ্য চেয়ে আসছি। কিন্তু আমাদের কাছে এ বিষয়ে খুব কম তথ্য ও পরিসংখ্যান আছে। বর্তমানে কোনো অভিযুক্তকে মানবপাচারকারী হিসেবে সংজ্ঞায়িত করতে দীর্ঘ সংজ্ঞা দেয়া হচ্ছে যা ইউরোপের বিভিন্ন দেশ অনুযায়ী নিয়মিত পরিবর্তিত হয়।”

পড়ুন>>আশ্রয়প্রার্থীদের ইলেকট্রনিক ব্রেসলেট পরানোর পরিকল্পনা যুক্তরাজ্যের


এমএইউ/এআই




 

অন্যান্য প্রতিবেদন