ইউক্রেনীয় শরণার্থীদের আগমন ও অর্থনীতিতে সাময়িক মন্দা ভাবের কারণে কর্মী চাহিদা কমলেও তীব্র কর্মী সংকটে ভুগছে জার্মানির শ্রম বাজার। ছবি: রয়টার্স
ইউক্রেনীয় শরণার্থীদের আগমন ও অর্থনীতিতে সাময়িক মন্দা ভাবের কারণে কর্মী চাহিদা কমলেও তীব্র কর্মী সংকটে ভুগছে জার্মানির শ্রম বাজার। ছবি: রয়টার্স

জার্মান শ্রমবাজারে দক্ষ জনশক্তির তীব্র সংকটকে সামনে রেখে ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাইরের দেশগুলো থেকে আসা দক্ষ অভিবাসীদের আকৃষ্ট করতে চায় জার্মানি। এ লক্ষ্যে বুধবার নাগরিকত্ব পাওয়ার প্রক্রিয়া সহজ করতে বেশ কয়েকটি প্রস্তাবনা দিয়েছে জার্মান কর্তৃপক্ষ।

বার্লিন থেকে রেড়িও ফ্রান্স ইন্টারন্যাশনালের বিশেষ সংবাদদাতা পাসকেল থিবু। 

ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাইরে থেকে আসা উচ্চ শিক্ষিত ও দক্ষ অভিবাসীদের জার্মানিতে স্থায়ী করতে অভিবাসন প্রক্রিয়া সহজতর করতে চায় জার্মান সরকার।

এটিকে সামনে রেখে, বুধবার ৮ সেপ্টেম্বর বেশ কয়েকটি পদক্ষেপের প্রস্তাব করা হয়েছে যা আগামী কয়েক মাসের মধ্যে বাস্তবায়ন হওয়ার কথা রয়েছে। 

সাম্প্রতিক দিনগুলোতে জার্মানির দোকান, রেস্তোরাঁ, পানশালা ও হোটেল মালিকদের মরিয়া হয়ে কর্মী খুঁজতে দেখা যাচ্ছে। জার্মান শ্রমবাজারে দেখা দিয়েছে প্রকট কর্মী সংকট। 

পড়ুন>>জার্মানিতে অভিবাসন সহজ করতে আসছে ‘অপর্চুনিটি কার্ড

আপাতত এই সংকট কাটাতে জার্মানির অভ্যন্তরীন জনশক্তিকে কাজে লাগাতে চেষ্টা করছে বার্লিন কর্তৃপক্ষ। বিশেষ কর, নারীদের কাজে সুবিধা করে দিতে কর্মজীবি মায়েদের শিশুদের দেখাশোনা করতে ডে-কেয়ার কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। 

কিন্তু শ্রম বাজারে চাহিদা মেটাতে এটি যথেষ্ট নয়৷ জার্মানির জনসংখ্যার উল্লেখযোগ্য একটি অংশ বার্ধক্যে উপনীত হওয়ায় ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাইরের দেশগুলো থেকে জনশক্তি আনতে নজর দিতে হবে দেশটিকে। 

আমলাতান্ত্রিক জটিলতা হ্রাসের চেষ্টা

নতুন প্রস্তাবনায় আমলাতান্ত্রিক জটিলতা কমিয়ে বিদেশী ডিগ্রীর স্বীকৃতি বা জার্মান ভাষায় দক্ষতার শর্ত কমিয়ে এনে ইইউ’র বাইরে থেকে আসা অভিবাসনকে উন্নীত করতে চায় বার্লিন।

এছাড়া, একটি পয়েন্ট সিস্টেমের মাধ্যমে প্রতি বছর একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক অ-ইউরোপীয় অভিবাসীকে জার্মানিতে আসতে এবং কাজ করার অনুমতি দেয়ার কথাও প্রস্তাবনায় উল্লেখ করা হয়েছে।

পড়ুন>>ইইউর নতুন ব্যবস্থা: ইটালি থেকে আশ্রয়প্রার্থীরা যাচ্ছেন ফ্রান্স, জার্মানিতে

পাশাপাশি, অভিবাসীদের জার্মান নাগরিকত্ব পেতে সময়সীমার নিয়মও কমিয়ে আনার কথা বলা হয়েছে। জার্মান সমাজে ভালোভাবে ‘ইন্টিগ্রেশন’ হতে সক্ষম হওয়া অভিবাসীদের আট বছরের বদলে পাঁচ বছর বৈধভাব বসবাসের পর নাগরিকত্ব আবেদনের সুযোগ এবং দ্বৈত নাগরিকত্বের সুবিধা দেওয়ার কথা চিন্তা করছে কর্তৃপক্ষ। 

বুধবার জার্মান সরকার উপস্থাপিত নথিতে, ২০২৬ সালের মধ্যে জার্মান শ্রম বাজারে ২ লাখ ৪০ হাজার অতিরিক্ত কর্মীর প্রয়োজন হওয়ার কথা বলা হয়েছে।

পড়ুন>>জার্মানি: ২০২২ এর প্রথমার্ধে ছয় হাজারের বেশি অভিবাসীকে জোরপূর্বক ফেরত

তবে এই সংখ্যাটি গত বছরের তুলনায় অনেক কম। মূলত অনেক ইউক্রেনীয় শরণার্থীর আগমন এবং অর্থনীতির সাময়িক মন্দা পরিস্থিতির কারণে এই পার্থক্য হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। 


এমএইউ/আরআর (রেড়িও ফ্রান্স ইন্টারন্যাশনাল)



 

অন্যান্য প্রতিবেদন