২০২১/২০২২ শিক্ষাবর্ষে প্যারিসের পন্থেওঁ সর্বন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আসা বিদেশি শিক্ষার্থীদের একটি দল। ছবি: এপি ফটো
২০২১/২০২২ শিক্ষাবর্ষে প্যারিসের পন্থেওঁ সর্বন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আসা বিদেশি শিক্ষার্থীদের একটি দল। ছবি: এপি ফটো

চলতি শিক্ষাবর্ষে ফ্রান্সের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চার লাখেরও বেশি বিদেশি শিক্ষার্থী পড়াশোনা করতে এসেছেন। ক্যাম্পাস ফ্রান্সের তথ্য অনুযায়ী, ফ্রান্সে পড়তে আসা এই বিদেশিদের মধ্যে এক লাখেরও বেশি এসেছেন আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ থেকে৷

ফ্রান্সে বিদেশী ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনাসহ স্টুডেন্ট ভিসা, বৃত্তি এবং আবাসন নিয়ে সার্বিক তথ্য প্রদান করে ফরাসি সরকারের উচ্চশিক্ষা বিষয়ক দপ্তর ক্যাম্পাস ফ্রান্স৷ 

দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছর অর্থাৎ ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ফরাসি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়তে আসা বিদেশি শিক্ষার্থীর সংখ্যা চার লাখ ছাড়িয়েছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আসা এসব ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে প্রায় এক লাখেরও বেশি অর্থাৎ এক চতুর্থাংশেরও বেশি আফ্রিকা মহাদেশ থেকে আগত।

আরও পড়ুন>> ফ্রান্স: শরণার্থী শিক্ষার্থীরা যে যে বৃত্তি পেতে পারেন

সেই হিসেবে ফ্রান্সের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সবচেয়ে বেশি প্রতিনিধিত্বকারী শীর্ষ ১০টি দেশের মধ্যে ছয়টি দেশ আফ্রিকা মহাদেশের। 

তালিকার প্রথম দেশটি হলো মরক্কো। মাগরেব অঞ্চলের এই দেশটি কয়েক বছর ধরে শীর্ষে অবস্থান করছে। চলতি বছর মরক্কোর ৪০ হাজারেরও বেশি শিক্ষার্থী ফ্রান্সের বিভিন্ন বিশ্বিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষার জন্য ভর্তি হয়েছেন যা ফ্রান্সের সমস্ত বিদেশী ছাত্রদের ১০ শতাংশেরও বেশি৷ 

আরও পড়ুন>> ফ্রান্সে শরণার্থীদের রন্ধন শিল্পের প্রশিক্ষণ

৩১ হাজার বিদেশি ছাত্র নিয়ে তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে আছে আলজেরিয়া। তালিকায় থাকা অন্যানায় আফ্রিকান দেশগুলোর মধ্যে সেনেগাল পঞ্চম, টিউনিশিয়া ষষ্ঠ, আইভরি কোস্ট অষ্টম এবং ক্যামেরুন দশম অবস্থানে রয়েছে। 

তালিকায় চীন ও ইটালি

ক্যাম্পাস ফ্রান্সের দেয়া শীর্ষ বিদেশি ছাত্রছাত্রীদের প্রতিনিধিত্বকারী দেশের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে এশিয়ার দেশ চীন। চলতি শিক্ষাবর্ষে মোট ২৭ হাজার ৪৭৯ জন শিক্ষার্থী দেশটি থেকে ফ্রান্সে পড়তে এসেছেন। যদিও করোনা মহামারির কারণে এই সংখ্যা আগের চেয়ে কিছুটা হ্রাস পেয়েছে। 

তবে, এর বিপরীত চিত্র ইউরোপের দেশ ইটালির ক্ষেত্রে। দেশটি থেকে ফ্রান্সে পড়তে এসেছেন ১৯ হাজার ১৮৫ জন শিক্ষার্থী। যা ২০২২-২১ শিক্ষাবর্ষের তুলনায় প্রায় ১৬ শতাংশ বেশি। 

পড়ুন>>অভিবাসীদের কাছে ‘কৃতজ্ঞ’ ক্যালাব্রিয়ার যে শহর

শীর্ষ দশ দেশের মধ্যে সপ্তম অবস্থানে আছে ইউরোপের দেশ স্পেন। 

১০ হাজার ৪৬৯ জন শিক্ষার্থী নিয়ে তালিকায় নবম অবস্থানে আছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ লেবানন। 

২০১৬ সালের পর থেকেই মূলত এসব দেশ থেকে ফ্রান্সে পড়তে আসার হার ব্যাপক হারে বেড়েছে। ২০২০ সালে শুরু হওয়া কোভিড-১৯ মহামারিজনিত সমস্যার পরে মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার দেশগুলোর ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে বিদেশে পড়তে যাওয়ার হার বেড়েছে।  

আরও পড়ুন>> ইইউ দেশগুলোর স্থানীয় নির্বাচনে অভিবাসীদের ভোটাধিকার

আগামী ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের জন্যও ইতিমধ্যে বিদেশী শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে রেকর্ড সংখ্যক আবেদন পাওয়া শুরু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে উচ্চশিক্ষা নিয়ে ফরাসি সরকারের দপ্তর ক্যাম্পাস ফ্রান্স। 


এমএইউ/আরআর     রেডিও ফ্রান্স ইন্টারন্যাশন্যাল (আরএফআই)



 

অন্যান্য প্রতিবেদন